গত দুই এক সপ্তাহ যাবত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম জুড়ে ভাইরাল মেয়ের কাশবনের ভিডিও । সবাই তার নিজের মত করে করছেন পোস্ট করছেন কমেন্ট করছেন একটি কাঁপলের ছবিকে ভিত্তি করে ।অনেকে বের করে ফেলছে তাদের ভূয়া ভাইরাল ভিডিও লিংক । আবার অনেকে সেই লিংকের পিছনে দৌড়াচ্ছে অনেক ভিডিওটি দেখার জন্য ।

সেই ভাইরাল যুগল এতটাই ভাইরাল হয়ে গেছে যে ছবি গুলার কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট পড়তে গেলে মাতায় হাত, চরম বিনোদন পাওয়া যায় ওই ছবির কমেন্ট সেকশনে । কমেন্টে যে বিষয় গুলো সব থেকে বেশি নজরে আসে তার মাঝে কিছু হচ্ছে ।

১) নিজে আগে প্রতিষ্ঠিত হও সুন্দরী বউ এমনিতেই মিলবে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর । ২) মানুষ এত কেন এই পোস্ট নিয়ে ট্রল করছে আমি তা বুঝতে পারছি না । ভদ্রলোকের বয়স হয়তো ৪০+, মেয়েটি ২০/২২ হবে হয়তো । বিদেশে থাকেন তারা , গত বছর বিয়ে হয়েছে তাদের দুই জনের । মেয়েটি বাংলাদেশের নাগরিক বাংলাদেশেই তার বেড়ে উঠা । কিন্তু খুবই আনন্দিত তাদের শতাধিক এরও বেশি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রয়েছে এখনও .

আরও পড়ুন

৬ মাসের প্রেমে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক

আর থাকছে না ফেসবুক নামে কোনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম

কোথাও মেয়েটিকে তার স্বামীর সাথে অপ্রস্তুত মনে হয়নি । তার থেকে বড়ো তাদের মধ্যে যে বিশ্বাস মিল তৈরী হয়েছে তা নেহাতই প্রশংসা যোগ্য ।বেশির ভাগ বাংলাদেশের মানুষই খুবই নিচু চরিত্রের ও নিচু মন মানসিকতার হয়ে থাকে ।

প্লিজ মানুষকে সম্মান করতে শিখুন, অপরের ব্যক্তিগত বিষয়ে অযাচিত নাক গলানো বন্ধ করুন। প্রোফাইলে যতটুকু দেখেছি তাতে আমি নির্দিধায় বলে দিতে পারি, ঐ ভদ্রলোকটি খুবই প্রতিষ্ঠিত এবং যারা যারা তাকে নিয়ে ট্রল করে মজা পাচ্ছেন- তারা ঐ ভদ্রলোকটির বা পায়ের কানি আংগুলের সমান যোগ্যতাও অর্জন করে উঠতে পারেননি।

আপনাদের অনুরোধ করে বলছি আবারও , অন্যে কারো ব্যক্তিগত জীবনের ব্যাক্তিগত বিষয় নিয়ে নোংরামী করা বন্ধ করুন প্লিজ । ড. হুমায়ূন আহমেদ এর সঙ্গে শাওন কে নিয়েও ট্রল করে মানুষ । যান না তাদের ধারে কাছে- দেখি কতটা যোগ্যতা রয়েছে আপনার নিজের?

Leave a Reply

Your email address will not be published.